Wednesday , June 16 2021

দেশে বজ্রপাতে একদিনে ১৭ জনের প্রাণহানি

অনলাইন ডেস্ক: দেশের বিভিন্ন স্থানে বজ্রপাতে ১৭ জনের প্রাণহানির খবর পাওয়া গেছে। রোববার চট্টগ্রাম, সিরাজগঞ্জ, ফেনী, টাঙ্গাইল, রংপুর ও মুন্সীগঞ্জে এই প্রাণহানির ঘটনা ঘটে।

এর মধ্যে রয়েছে চট্টগ্রামে ছয় জন, সিরাজগঞ্জে পাঁচ জন, টাঙ্গাইল ও ফেনীতে দুই জন করে এবং রংপুর ও মুন্সীগঞ্জে একজন করে।খবর বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের।

খবরে বলা হয়,

ভারি বর্ষণের মধ্যে চট্টগ্রামে বজ্রপাতে দুই নারীসহ ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে; আহত হয়েছে আরও চার জন।

ফটিকছড়ি ও সীতাকুণ্ড উপজেলায় দুই জন করে এবং বোয়ালখালী ও মিরসরাইয়ে একজন করে মারা যান।

মৃতরা হলেন- সীতাকুণ্ড উপজেলায় আব্দুল জলিল (৪০) ও এসকান্দার আলী (৬০), ফটিকছড়িতে লাকী দাশ (৩৮) ও ভানু শীল (৪০), মিরসরাইয়ে স্কুল শিক্ষার্থী মো. সাজ্জাদ হোসেন (১৬) ও বোয়ালখালীতে মো. জাহাঙ্গীর (৩৯)।

আহতরা হলেন- মালতী রানী দাশ (৫০) ও শোভা রানী দাশ (৪৫), মোশারফ হোসেন (৫০) ও বদিউজ্জামান (১৮)।

তাদের মধ্যে সাজ্জাদ হোসেন স্কুল শিক্ষার্থী এবং আব্দুল জলিল শিপ ইয়ার্ড শ্রমিক।

সিরাজগঞ্জের তিন উপজেলায় বজ্রপাতে পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। রোববার বিকাল থেকে সন্ধ্যার মধ্যে শাহজাদপুর, উল্লাপাড়া ও বেলকুচি উপজেলায় এসব মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, শাহজাদপুর উপজেলার কায়েমপুর ইউনিয়নের চর আঙ্গারু গ্রামের আমানত হোসেনের ছেলে আব্দুল্লাহ (২৬), নরিনা ইউনিয়নের বাতিয়া গ্রামের আলহাজ বাবুর্চি (৫০), উল্লাপাড়ার বাগমারা গ্রামের রফিকুল ইসলাম (৪৫), উধুনিয়া ইউনিয়নের আগদিঘল গ্রামের শাহেদ আলীর ছেলে স্কুলছাত্র ফরিদুল ইসলাম (১৫) এবং বেলকুচির চরশমেসপুর গ্রামের ইউসুফ আলীর স্ত্রী লাইলী থাতুন (৩৫)।

ফেনীর সোনাগাজীতে বজ্রপাতে এক কিশোরী ও এক শিশু নিহত হয়েছে; যারা সম্পর্কে চাচাত ভাইবোন।

রোববার সকালে উপজেলার বগাদানা ইউনিয়নের আলমপুর গ্রামের আনু ফরাজী বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে বলে সোনাগাজী মডেল থানার ওসি সাজেদুল ইসলাম পলাশ জানান।

নিহতরা হল আলমপুর গ্রামের আনু ফরাজী বাড়ির মোহাম্মদ সোলেমানের মেয়ে তামান্না আক্তার (১৪) ও একই বাড়ির বাহার উল্লাহর ছেলে আল আমিন (৬)। তারা স্থানীয় কাটাসিলা সমদিয়া দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষার্থী ছিল।

টাঙ্গাইলের নাগরপুরের দুই স্থানে বজ্রপাতে দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। রোববার বিকালে উপজেলার ভাদ্রা এবং বেকড়া ইউনিয়নে এ মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

মৃতরা হলেন, উপজেলার ভাদ্রা ইউনিয়নের গাংবিহালী গ্রামের মো. বক্তার খানের ছেলে আলমাছ খান (৫৫) এবং বেকড়া ইউনিয়নের বেকড়া মধ্য পাড়া গ্রামের পলান মিয়ার ছেলে সোনা মিয়া (৫৩)।

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে বৃষ্টির মধ্যে মাঠে খেলার সময় এক কলেজছাত্র নিহত হয়েছেন; আহত হয়েছেন আরও দুই জন। রোববার বিকাল ৩টায় উপজেলার শেখরনগর মাঠে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

নিহত অপুর্ব বর্মন (১৭) শেখরনগর জেলেপাড়া গ্রামের স্বপন বর্মনের ছেলে এবং আলী আজগর এন্ড আব্দুল্লাহ কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী।

আহত পরিচয় ও অপু বর্মনও একই গ্রামের বাসিন্দা। তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

রংপুরের গঙ্গাচড়ায় বজ্রপাতে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। রোববার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার কোলকোন্দ ইউনিয়নের চর মটুকপুর গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত আমিনুর ইসলাম (৩৭) ওই গ্রামের মফিজ উদ্দিনের ছেলে।